Algin Tablet কেন খায়, কাজ কি ও দাম কত

আমরা যদি অ্যালজিন ট্যাবলেট সম্পর্কে জানতে চাই তাহলে সহজ ভাবে বুঝতে গেলে একদিন ট্যাবলেট এক প্রকার ব্যথার ওষুধ। তবে এটা শরীরের সব ব্যথা ওষুধ হিসেবে কাজ করে না। এ ওষুধের একটি নির্দিষ্ট কার্য সীমা রয়েছে। তবে এই ওষুধের কার্যসীমা এবং এর ব্যবহার শরীরের গুরুত্বপূর্ণ অংশের জন্য ব্যবহৃত হয়। মূলত এই ঔষধটি ফুসকুড়ি,ব্যথা,এবং রুমেটয়েড আর্থ্রাইটিসের সাথে যুক্ত জয়েন্টগুলির সংকোচনের মতো উপসর্গগুলিকে চিকিত্সা করার জন্য ব্যবহার করা হয়। আরো ইত্যাদি রোগ নিরাময়ের জন্য এই ও ট্যাবলেটটি ব্যবহার করা হয়। অতঃপর Algin tablet কেন খায় আরো বিস্তারিত জানতে আমাদের এই পোস্ট সম্পূর্ণ করুন।

আজকের এই পোস্ট দ্বারা আপনি জানতে পারবেন Algin tablet কেন খায় এবং কোন ডাক্তার রোগীকে এই ওষুধ কেন প্রদান করে থাকেন তা নিয়ে। এছাড়াও আজকের এই আর্টিকেল দ্বারা জানতে পারবেন Algin tablet কখন এবং কিভাবে সেবন করবেন। অনেকের বিভিন্ন রোগ নিরাময়ের জন্য ডাক্তারের কাছে শরণাপন্ন হয়ে থাকেন। তবে ডাক্তার এই ট্যাবলেটটি রোগীদেরকে কেন প্রদান করে থাকেন তাহলে কি জেনে থাকেন না। যদি কোন ডাক্তার আপনাকে এই ট্যাবলেট দিয়ে থাকেন। তাহলে আমাদের এই পোস্ট থেকে জেনে নিন এই আলজিন ট্যাবলেট কি কাজ করে। অতএব আরো বিস্তারিত জানতে নিচে প্রবেশ করুন।

Algin tablet কেন খায়

আমাদের শরীরে বিভিন্ন ধরনের ব্যথার প্রভাব হয়ে থাকে। যা আমরা পরক্ষণেই অনুভব করতে পারি। যে অনুভবটা আমাদের ব্যথার অনুভূতি জায়গায়। তবে ব্যথা অনুভূতিকে নিরাময় করার জন্য অনেকেই   অ্যালজিন ট্যাবলেট সেবন করে থাকেন। আবার অনেকেই অনলাইনে এসে জানতে চান যে Algin tablet কেন খায়। তবে মূলত এই অ্যালজিন ট্যাবলেট কে মূত্রনালী ও স্ত্রী জননাঙ্গ সংক্রান্ত রোগের নিরাময়ের জন্য ব্যবহার করা হয়। তবে আজকের এই পোস্ট থেকে জানতে পারবেন কখন এবং কিভাবে এই অ্যালজিন ট্যাবলেটটি সেবন করা হয়। এছাড়াও জানতে পারবেন এই অ্যালজিন ট্যাবলেট এর দাম কত টাকা। অতএব একটু নিচে প্রবেশ করুন।

Algin tablet এর কাজ কি

খুব সহজে বোঝার জন্য স্বাভাবিকভাবে বলতে গেলে এটি একটি ব্যথানাশক ওষুধ অর্থাৎ যাদের শরীরে এবং অ্যানকিলোজিং স্পন্ডলাইটিসের সাথে যুক্ত কঠিনতা এবং ব্যথা মতো লক্ষণগুলি রয়েছে তাদের এক এই বিশাল  রোগ নিরাময়ের জন্য চিকিৎসায় এই Algin tablet ব্যবহৃত হয়। আর এটি হচ্ছে এই ট্যাবলেট এর কাজ। এ ছাড়া আর কিছু কাজ এই Algin tablet করে থাকে যেমন।

মেয়েদের পিরিয়ড জনিত ব্যথায় অ্যালজিন খুবই বেশি কার্যকর এবং এক্ষেত্রে ডাক্তাররা রোগীকে এই ট্যাবলেটটি প্রদান করে থাকেন। এছাড়া ও গর্ভকালীন সময়ে যাদের অতিরিক্ত পেট ব্যথা হয় তাদের জন্যও অনেক ডাক্তার অন্যান্য ওষুধের পাশাপাশি অ্যালজিন খাওয়ার পরামর্শ প্রদান করে থাকেন। তবে সচরাচর বিভিন্ন রোগীর মাজা ব্যথার জন্য অনেক ডাক্তার এই ট্যাবলেট প্রদান করে থাকেন।

এছাড়াও আলজিন ০.৫এম জি ট্যাবলেট ও ওষুধের একটি গোষ্ঠীর অংশ। যা বেনজোডিয়াজাইনা নামে যায়। ওষুধের এই শ্রেণীর মাধ্যমে তারা মস্তিষ্ক এবং কেন্দ্রীয় স্নায়ুতন্ত্রকে শান্ত করে এবং প্যানিক আক্রমণ কে প্রতিরোধ করে।

অ্যালজিন ৫০ এমজি কিসের ঔষধ

ইতিমধ্যে হয়তো আমরা এই অ্যালজিন ৫০ ওষুধ সম্পর্কে জানতে পেরেছি। এছাড়াও অ্যালজিন ৫০ সম্পর্কে জেনে নিয়েছি বিভিন্ন তথ্য সম্পর্কে। যদি আমরা সহজ ভাবে জানতে চাই তাহলে এই ওষুধটি শরীরের বিভিন্ন ব্যথার জন্য ব্যবহার করা হয়। যেমন কোমরের ব্যথা রয়েছে,আবার মাথাব্যথা এবং কানের ব্যথার জন্যও এই ট্যাবলেট সেবন করা হয়। আপনাদের জানানোর সুবিধার জন্য নিচে সংক্ষেপে Algin tablet কেন খায় এবং কিসের ঔষধ তা উল্লেখ করা হলো। 

  • মাথা ব্যাথা
  • কানের ব্যথা
  • পিরিয়ড জনিত ব্যথা
  • কোমরের ব্যথা
  • অস্টিওআর্থারাইটিস
  • গর্ভকালীন সময়ে অতিরিক্ত পেট ব্যথা

তবে যেসব রোগের নিরাময় করার জন্য ট্যাবলেট ব্যবহার করা হয় সেগুলো সম্পর্কে বিস্তারিত উল্লেখ করা হয়েছে। অস্টিওআর্থারাইটিসের সাথে যুক্ত নমনীয় এবং বেদনাদায়ক জয়েন্টগুলির মতো উপসর্গগুলিকে চিকিৎসা করার জন্য ব্যবহার করা হয়। এরপর ফুসকুড়ি, শরীরের বিভিন্ন ব্যথা এবং রুমেটয়েড আর্থ্রাইটিসের সাথে যুক্ত জয়েন্টগুলির নাড়াচাড়া করনের ফলে যে ব্যথা বা উপসর্গগুলি দেখা দেয় তার জন্য চিকিৎসা পদ্ধতিতে এই ওষুধটি ব্যবহার করা হয়।

এলজিন ট্যাবলেট এর দাম কত

অতঃপর অনেকেই এই অ্যালজিন ট্যাবলেট এর দাম সম্পর্কে জানতে চান। একদম নির্ভুল এবং সঠিক দাম এখানে উল্লেখ করেছি। অর্থাৎ আপনার  নিকটস্থ যে কোন ফার্মেসিতে থেকে এই ট্যাবলেট প্রতি পিস ৮ টাকা ৫০ পয়সায় সংগ্রহ করতে পারবেন। তবে ফার্মেসীর ভিন্নতার কারণে ৯ টাকা এর মূল্য হতে পারে।

অ্যালজিন ট্যাবলেট খাওয়ার নিয়ম

এই ট্যাবলেট খাওয়ার কিছু নিয়ম রয়েছে। যে নিয়ম গুলো একজন রোগীর জন্য মেনে চলার গুরুত্বপূর্ণ।  অতিরিক্ত সেবনের ফলে এবং অনিয়মিত এর ট্যাবলেট সেবনের ফলে শরীরে বিভিন্ন প্রকার রোগের উপসর্গ দেখা দিতে পারে। তবে আপনি এই ওষুধ যখনই ব্যবহার করবেন তখন আপনার রোগের  বিস্তারিত তথ্য ডাক্তারকে জানিয়ে ওষুধ সেবন করার নিয়ম জেনে নিন। 

তবে ডাক্তারের কাছে পৌঁছাতে না পারলেও আমাদের এই আর্টিকেল থেকে জানতে পারবেন কিভাবে এ ওষুধটি খেতে হবে। অর্থাৎ এ ট্যাবলেট খাওয়ার উপযোগী সময় রোগীর বয়সের উপর অনেকটা নির্ভর করে। যদি প্রাপ্তবয়স্ক হয়ে থাকে তাহলে প্রতিদিন ২ থেকে ৬ টা ৫০ এমজি ট্যাবলেট। তবে যদি সিরাপ হয়ে থাকে তবে এর ক্ষেত্রে ৩ থেকে ৯ চামচ চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী একজন প্রাপ্তবয়স্ক রোগীরা সেবন করতে পারবে। আর শিশুদের ক্ষেত্রে দৈনিক ৩ মিলি।

তবে এই এলজিন ট্যাবলেট সম্পর্কে এবং এই ট্যাবলেট সেবনে কোন রকম সন্দেহ থাকলে অবশ্যই ডাক্তারের সাথে কোন যোগাযোগ করবেন। যদি এই ওষুধ অতিরিক্ত পরিমাণে সেবন করেন তাহলে কিছু লক্ষণ দেখা দিতে পারে যেমন চামড়া,বিভ্রান্তি,বুকে ব্যথাসহ অস্পষ্ট দৃষ্টি ইত্যাদি হতে পারে।

এলজিন কোন অসুখের ট্যাবলেট

শরীরের বিভিন্ন ধরনের সমস্যা হতে পারে যেমন মূত্রাশয় ও জরের পেশি নাড়াচাড়া কে কমাতে এই এলজিন আপনাকে সাহায্য করবে। এবং শরীরে বিভিন্ন ধরনের ব্যথা জনিত জায়গাকে প্রশমিত করতে  অ্যালজিন ট্যাবলেট ব্যবহার করা হয়। অতঃপর মূত্রনালী ও স্ত্রী জননাঙ্গ সংক্রান্ত রোগের সংকোচন ও ব্যথার চিকিৎসায় নির্দেশিত এই এলজিন ট্যাবলেট এবং এই ট্যাবলেট অনেক রোগীকে প্রদান করে থাকেন।

Algin tablet এর পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া

প্রত্যেকে ঔষধ বা ট্যাবলেটের আর কিছু না কিছু পাশের প্রতিক্রিয়া থাকে। তবে প্রতিক্রিয়া হতে পারে ভালো এবং খারাপ। যদি পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া সম্পর্কে জানতে চাই তাহলে সকল ওষুধের অতিরিক্ত সেবনে এবং অনাকাঙ্ক্ষিত সেবনের ফলে হয়ে থাকে। তেমনি অ্যালজিন ট্যাবলেট এর কিছু পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া রয়েছে। Algin tablet কেন খায় এবং পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া সম্পর্কে অবশ্যই জেনে রাখা উচিত। 

তবে একজন ট্যাবলেট এর বিভিন্ন কাজের পাশাপাশি শরীরের বিভিন্ন ক্ষতি করতে পারে। আমরা জানি অ্যালজিন ৫০ মিঃ গ্রাঃ ট্যাবলেট ফসফোলিপিড এবং প্রোটিনের সাথে ক্যালসিয়াম এর বন্ধনকে শক্তিশালী করে এবং জিআই ট্র্যাক্টের কোষের ঝিল্লিকে স্থিতিশীল করে।

চলুন জেনে নেই এই অ্যালজিন ট্যাবলেট এর বিভিন্ন পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া সম্পর্কেঃ শরীরের কারো কারো ক্ষেত্রে হাইপারটেনশনের সৃষ্টি হতে পারে এই ওষুধের অতিরিক্ত প্রয়োগে এবং অনেকের ক্ষেত্রে টেকিকার্ডিয়া হওয়ার ঝুঁকি থাকতে পারে। এছাড়া অন্যতম যে প্রতিক্রিয়া গুলো দেখা যায় তা হচ্ছে

  • বাসস্থান এবং আলোর প্রতি সংবেদনশীলতা হ্রাস
  • ইন্ট্রাওকুলার চাপ বৃদ্ধি
  • ফ্লাশিং
  • শুষ্ক ত্বক
  • ব্র্যাডিকার্ডিয়া
  • টাকাইকার্ডিয়া
  • অ্যারিথিমিয়াস
  • এবং কোষ্ঠকাঠিন্য দেখা যেতে পারে
  • পেটে ব্যথা (Abdominal Pain)
  • কোষ্ঠকাঠিন্য (Constipation)
  • ডায়রিয়া (Diarrhoea)
  • বমি ভাব বা বমি (Nausea Or Vomiting)
  • চামড়াতে ফুসকুড়ি (Skin Rash)
  • ধড়ফড়ানি

গর্ভাবস্থায় অ্যালজিন ট্যাবলেট

এটা ট্যাবলেট ব্যবহারে বিশেষ কিছু সর্তকতা রয়েছে যেমন। বুকের দুধ খাওয়ানো রোগীদেরকে বিশেষ সতর্কতার সাথে এই ওষুধটি সেবন কথা বলা হয়েছে। এখন গর্ভাবস্থায় এলজিন ট্যাবলেট এর অবস্থা সম্পর্কে। যেমন এই ঔষধটি গর্ভাবস্থায় বা বুকের দুধ খাওয়ানোর সময় মায়েদের দেওয়া উচিত নয়। অর্থাৎ আপনি যদি গর্ভবতী হয়ে থাকেন এবং এমত অবস্থায় আপনার শিশুকে যদি দুধ খাওয়ান। তাহলে আপনার শিশুর সমস্যা হতে পারে। তবে গর্ব অবস্থায় এই ওষুধ ব্যবহারের সম্পূর্ণ ডাক্তারের পরামর্শ নেওয়া উচিত।

শেষ কথা

আশা করছি আপনারা আজকের এই আর্টিকেল থেকে জানতে পেরেছেন যে একজন রোগী Algin tablet কেন খায়। যদি সত্যিই আমাদের এই আর্টিকেল থেকে তথ্য জানতে পেরে থাকেন এবং উপকৃত হয়ে থাকেন। তাহলে এই আর্টিকেলটি আপনার আশেপাশের ব্যক্তিদেরকে শেয়ার করে জানিয়ে দিন। এই ওষুধটি ডাক্তার বিভিন্ন রোগীদের কে প্রদান করে থাকেন। তবে অনেকেই জেনে থাকেন না এই ওষুধ কোন রোগের নিরাময়ের জন্যপ্রদান করা হয়ে থাকে। আশা করছি আমাদের এই পোস্ট থেকে জানতে পেরেছেন।

আরও দেখু*নঃ

Montair 10 এর কাজ কি

Fexo 120 এর কাজ কি

Scroll to Top