রহিম আফরোজ আইপিএস এর দাম

বাংলাদেশের অন্যতম একটি বড় গ্রুপ হিসাবে প্রতিষ্ঠা লাভ করেছে রহিম আফরোজ লিমিটেড বাংলাদেশের একটি কোম্পানি। বাংলাদেশের জনগণের অনেক পরিচিত এই কোম্পানিটি ১৯৫৪ সালে চট্টগ্রামে আব্দুর রহিম এর নেতৃত্বে একটি ছোট্ট ট্রেডিং কোম্পানি হিসাবে তার যাত্রা শুরু করে।

তবে আপনার বাসা বাড়িতে বিদ্যুতের সঠিক নিশ্চয়তা দিতে রহিম আফরোজ শতভাগ উন্নত। তবে বাংলাদেশের বিভিন্ন কোম্পানির আইপিএস আপনি বাজারে লক্ষ্য করতে পারবেন। এর মধ্যে থেকে ভালো মানের আইপিএস ক্রয় করা অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ। দীর্ঘদিন পর্যন্ত ব্যবহার করাই সবথেকে গুরুত্বপূর্ণ।

তাই দীর্ঘদিন ব্যবহার করার জন্য রহিম আফরোজ আইপিএস ক্রয় করুন। তবে এই আইপিএস ক্রয় করার পূর্বে অবশ্যই সঠিক দাম সম্পর্কে ধারণা রাখা উচিত। অতএব এই পোস্ট থেকে রহিম আফরোজ আইপিএস এর দাম বিস্তারিত জানুন। 

রহিম আফরোজ আইপিএস এর দাম

এই রহিম আফরোজ কোম্পানি বাংলাদেশে ১৯৫৪ সালের ছোট্ট একটি ট্রেডিং কোম্পানি নিয়ে যাত্রা শুরু করলেও রহিম আফরোজ বাংলাদেশে ১৯৯৩ সালে প্রথম আইপিএস চালু করে। এই রহিম আফরোজ কোম্পানি বাংলাদেশসহ আন্তর্জাতিক বাজারেও এর পণ্য রপ্তানি করে থাকে। তাই নিঃসন্দেহে আপনি দীর্ঘ মেয়াদী এই রহিম আফরোজ আইপিএস ক্রয় করে নিতে পারেন।

তবে ব্যাটারি ক্যাপাসিটির উপর ভিত্তি করে এবং ওয়াট এর উপর নির্ভর করে রহিম আফরোজ আইপিএস এর দাম সর্বনিম্ন ৩০০০০ টাকা থেকে শুরু হয়। তবে রহিম আফরোজ আইপিএস সর্বোচ্চ আপনি লাখ টাকার উপরে ক্রয় করতে পারবেন। আপনি কত টাকা দিয়ে আইপিএস কিনবেন এবং কত ওয়াটের রহিম আফরোজ আইপিএস কিনবেন তার সম্পূর্ণ নির্ভর করছে আপনার বাজেটের উপরে।

রহিম আফরোজ আইপিএস এর দামের তালিকা 2023

লোডশেডিং এর হয়রানি থেকে মুক্তি পেতে আইপিএস এর বিকল্প কিছু নেই। আপনাকে লোডশেডিং এর সময় দীর্ঘক্ষণ পর্যন্ত বিদ্যুৎ সক্ষম এ রহিম আফরোজ আইপিএস। তবে রহিম আফরোজ আইপিএস এর একটি প্যাক আপনি পেয়ে যাবেন। যেখানে ব্যাটারি সহ আইপিএস সেট আপের সমস্ত সরঞ্জাম থাকবে। তবে রহিম আফরোজ আইপিএস সর্বনিম্ন ৩৪ হাজার টাকায় ক্রয় করতে পারবেন।

এবং সর্বোচ্চ এ রহিম আফরোজ আইপিএস এর দাম ১ লক্ষ ৭০ হাজার টাকা। তবে রহিম আফরোজ আইপিএস কত টাকা কিনলে কতটা ব্যাকআপ পাবেন তা অবশ্যই জেনে রাখা উচিত। তাই উল্লেখিত ৩৩৯০০ টাকায় ২৮০ ওয়াটের রহিম আফরোজ আইপিএস আপনাকে ২ ঘণ্টা পর্যন্ত ৪টি এলইডি লাইট ও ২টি ফ্যান চালানোর সুবিধা দেবে।

এছাড়া ৪০০ ওয়াট রহিম আফরোজ আইপিএস এর দাম ৪১ হাজার টাকা। এবং ৫০০ ওয়াট রহিম আফরোজ আইপিএস এর দাম ৫০০০০ টাকা। রহিম আফরোজ আইপিএস এর দাম আরো বিস্তারিত জানতে একটু নিচে প্রবেশ করুন।

রহিম আফরোজ আইপিএস এবং ব্যাটারির দাম

যদি রহিম আফরোজ আইপিএস এর ফুল প্যাকেজ কিনতে চান তাহলে অবশ্যই আপনাকে সর্বনিম্ন ৩৪ হাজার টাকা বা ৩০ হাজার টাকা বাজেট রাখতে হবে। আর যদি আলাদা আলাদা একটি ব্যাটারি এবং আইপিএস ক্রয় করতে চান এক্ষেত্রে আপনি ক্রয় করতে পারবেন।

তবে জেনে রাখু*ন রহিম আফরোজ শুধুমাত্র আইপিএস এর দাম সর্বনিম্ন ১০ হাজার টাকা বা এর থেকেও কিছু কম হতে পারে। এবং মোটামুটি দামগুলো ১৫০০০ টাকা ২০০০০ টাকা হবে। এছাড়াও রহিম আফরোজ একটু ব্যাটারির দাম সর্বনিম্ন ০৮ হাজার থেকে ২৫ হাজার টাকা পর্যন্ত।

  • অল্প দামের Rahimafrooz Power Pack 900VA IPS এর দাম ১৩০০০ টাকা।
  • Power Pack 700VA IPS with 120Ah Battery ৩৭,৫০০ টাকা।
  • SRZ 600 Sinewave IPS এর দাম ৪১,০০০ টাকা।
  • Power Pack 1100VA IPS এর দাম ৪৮,০০০ টাকা।
  • RZ 950 Sine Wave IPS এর দাম ৫৪,৬০০ টাকা।

এছাড়া বাংলাদেশের অবস্থিত জনপ্রিয় কোম্পানির রহিম আফরোজ ব্যাটারি সহ আইপিএস এর দাম ১ লক্ষ টাকার উপরে হতে পারে। তাই আপনার বাড়িতে কতটা পরিমান লোড রয়েছে। ঠিক তার পরিমাণ নির্ণয় করে রহিম আফরোজ আইপিএস ক্রয় করুন।

আইপিএস কি ও কেন আইপিএস প্রয়োজন

আই পি এস (IPS) এর ফুল মিনিং হচ্ছে ইনস্ট্যান্ট পাওয়ার সাপ্লাই। অর্থাৎ আপনি সরাসরি এই আইপিএস থেকে বিদ্যুৎ পেয়ে যাবেন। আইপিএস কেন প্রয়োজন? বিশেষ করে গরমের সময় এর থেকে বেশি আইপিএস এবং ব্যাটারির চাহিদার বৃদ্ধি পেয়ে থাকে। আর বাংলাদেশের বেশিরভাগ সময় লোডশেডিং এর প্রচুর সমস্যা দেখা দিয়ে থাকে।

আর এই সমস্যাকে নিরাময় অবশ্যই একটি আইপিএস ক্রয় করুন। এ আইপিএস আপনার এসি কারেন্ট কে ডিসি কারেন্টে পরিণত করে বিদ্যুৎ সঞ্চয় করে রাখে। যা পরবর্তীতে আপনার বাড়িতে বিদ্যুতের সমস্যা দেখা দিলে তা প্রয়োজন অনুযায়ী বিদ্যুতের চাহিদা মেটাতে পারবেন।

এছাড়া এই আইপিএস ব্যবহার করে, এলইডি টিভি সহ কয়েকটি ফ্যান এবং লাইট খুব সহজেই অনায়াসে কয়েক ঘন্টা ব্যবহার করতে পারবেন। তবে আপনি কতক্ষন এই আইপিএস ব্যবহার করে বিদ্যুৎ ব্যাকআপ সেটা সম্পূর্ণ নির্ভর করছে আইপিএস,ব্যাটারির  ওয়াট এবং ক্যাপাসিটির উপর। তাই যে কোন কোম্পানির অথবা রহিম আফরোজ আইপিএস ক্রয় করার করতে অবশ্যই এ বিষয়গুলো লক্ষ করুন।

রহিম আফরোজ মিনি আইপিএস এর দাম

শুধুমাত্র রহিম আফরোজের আইপিএস গুলো আপনি ১০ হাজার থেকে ২০ হাজার টাকা ক্রয় করতে পারবেন। এবং ব্যাটারি সহ রহিম আফরোজ আইপিএস ক্রয় করতে চাইলে সর্বনিম্ন আপনার বাজেট রাখতে হবে ৩০ হাজার থেকে ৩৪ হাজার টাকা।

তবে সম্পূর্ণ ওয়াট অনুযায়ী আপনার রহিম আফরোজ  আইপিএস এর দাম নির্ভর করছে। এক্ষেত্রে যদি রহিম আফরোজার মিনি আইপিএস কিনতে চান। তাহলে সর্বনিম্ন ১০ হাজার থেকে ২০ হাজার  টাকায় পেয়ে যাবেন। অতএব বিস্তারিত দেখে নিন রহিম আফরোজ আই পি এস এর  এর দাম।

  • Rahimafrooz 1275-Watt and IPS Control Unit মূল্যঃ ২১,০০০ টাকা।
  • Power Pack 700VA IPS with 120Ah Battery এর সর্বনিম্ন দাম ৩৭,৫০০ টাকা
  • SRZ 600 Sinewave IPS এর দাম ৪১ হাজার টাকা।

রহিম আফরোজ সোলার আইপিএস এর দাম

যদি এ রহিম আফরোজ কোম্পানির মধ্য থেকে ভালো মানের একটি আইপ্যাড ক্রয় করতে চান তাহলে অবশ্যই এই Rahimafrooz RZ 1125 Sine Wave IPS মডেলের আইপিএস ক্রয় করতে পারেন। এক্ষেত্রে এর মূল্য হবে ৬০ হাজার টাকা। এছাড়া রহিম আফরোজ RZ 950 এই মডেলের আইপিএস এর দাম ৫১ হাজার টাকা।

এবং Rahimafrooz 550VA এই মডেলের আইপিএস এর মূল্য ৩৮,২০০ টাকা। তবে বর্তমানে এ সকল  রহিম আফরোজ আইপিএস এর দাম অনেকটা পরিবর্তন হয়েছে। এবং অল্প দামের মধ্যে রহিম আফরোজ শুধুমাত্র আইপিএস এর দাম এই ION 3.5 KVA মডেলের দাম ১৫০০০ টাকা। এছাড়াও Rahimafrooz 350VA এই মডেলের আইপিএস এর দাম ৩১ হাজার ৯০০ টাকা।

এছাড়া অল্প দামের মধ্যে এই মডেলের Rahimafrooz 1275-Watt IPS Control Unit অনেক ভালো। এরপর বর্তমান বাজার মূল্য ২১,০০০ টাকা। আর রহিম আফরোজ শুধু আইপিএসের Rahimafrooz Power Pack 700VA IPS দাম ১১৫০০ থেকে ১২ হাজার টাকা। মোট কথা আপনার আইপিএস এর ওয়াট অনুযায়ী মূল্য নির্ধারণ করা হয়।

রহিম আফরোজ শোরুম ঢাকা

বাংলাদেশের রাজধানীতে বিভিন্ন জায়গায় রহিম আফরোজ ব্যাটারির এবং আইপিএস এর শোরুম রয়েছে। তবে সেখান থেকে আপনারা পাইকারি মূল্যে রহিম আফরোজ আইপিএস ক্রয় করতে পারবেন। এর মধ্যে উল্লেখিত কয়েকটি শোরুমের ঠিকানা এখানে উল্লেখ করা হয়েছে। অতএব যারা ঢাকার গাজীপুরে বসবাস করেন আর সেখানে আফরোজ ব্যাটারি এবং আইপিএস এর শোরুম রয়েছে।

এছাড়া ঢাকা মিরপুর কাজীপাড়ায় এ রহিম আফরোজ শোরুম রয়েছে। তাই এলাকার আশেপাশের ব্যক্তির অবশ্যই সেখান থেকে রহিম আফরোজ আইপিএস ক্রয় করুন। এছাড়া ঢাকার বিভিন্ন অলি গলিতে এই সকল কোম্পানির ব্যাটারি এবং আইপিএস পাওয়া যায়।

রহিম আফরোজ আইপিএস এর ব্যাটারি ব্যাকআপ

যদি রহিম আফরোজ আইপিএস করার করে থাকেন তাহলে এর সাথে ব্যবহৃত ব্যাটারির প্রয়োজন অনুযায়ী ওয়াট হিসেবে আপনি ব্যবহার করতে পারবেন। তবে এই রহিম আফরোজ কোম্পানির আইপিসির ওয়াটে এবং ক্যাপাসিটির উপর ভিত্তি করে নির্দিষ্ট ওয়াটে আউটপুট দিতে সক্ষম হয়।

এবং ব্যাটারির যে এম্পিয়ার থাকে তাকে ক্যাপাসিডের ভিত্তিতেও ব্যাকআপের সময় কম এবং বেশি করা যায়। তবে অবশ্যই রহিম আফরোজ ক্রয় করার পূর্বে আপনার বাসা বাড়িতে কতগুলো লোড রয়েছে তার নির্ণয় করে ওয়াট বের করুন। তারপর রহিম আফরোজ আইপিএস এর ব্যাটারি কিনুন।

অতএব আপনি যদি ৪০০ ওয়াটের রহিম আফরোজ আইপিএস ব্যবহার করতে চান। তাহলে এক্ষেত্রে আপনাকে ২ ঘন্টা যাবত অনায়াসে ৬টি এলইডি ও ৩টি ফ্যান চালানোর সুবিধা প্রদান করবে। এবং ৭ হাজার ৫০০ ওয়াটের আইপিএসে ২ টনের এসি ছাড়াও ১২টি লাইট, ১০টা ফ্যান ও ২টি টিভি চালানো যায়।

রহিম আফরোজ ব্যাটারি দাম ২০২৩

এ সকল আইপিএস এ ব্যবহৃত ব্যাটারির ভোল্টেজ অবশ্যই 12 ভোল্টের হয়ে থাকে। তবে এর ওয়াট অনুযায়ী এর কার্যক্ষমতা হ্রাস এবং বৃদ্ধি করা হয়। যত বেশি ওয়াটের ব্যাটারি ক্রয় করবেন তত বেশিখন আপনার লোড ব্যাকআপ দিতে সক্ষম হবে। তবে সর্বনিম্ন রহিম আফরোজ ব্যাটারি আপনি ১০ থেকে ১২ হাজার টাকা দিয়ে ক্রয় করতে পারবেন। এবং সর্বোচ্চ ২৫ হাজার টাকা এবং আফরোজ ব্যাটারি পাওয়া যায়। তবে বর্তমানে সবকিছুর দাম একটু বেশি। 

রহিম আফরোজ আইপিএস কাস্টমার কেয়ার

আপনি যদি রহিম আফরোজ আইপিএস কোম্পানির কাস্টমার কেয়ারের সাথে খুব সহজে যোগাযোগ করতে পারেন। এক্ষেত্রে যোগাযোগ করার জন্য আপনি তাদের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে ভিজিট করতে পারেন। নতুনবা তাদের সার্ভিস সেন্টারে কল করে আপনার সমস্যা তাদেরকে শেয়ার করতে পারেন।

আর এ রহিম আফরোজ কোম্পানি হেড অফিস হচ্ছে 705, 706, West Nakhalpara, Tejgaon Dhaka-1205, Bangladesh. তাই আপনার আশেপাশে যদি এই ঠিকানা হয়ে থাকে তাহলে আপনার যে কোন সমস্যায় তাদের সাথে যোগাযোগ করুন। এছাড়া যদি তাদের সাথে অতি দ্রুত যোগাযোগ করতে চান তাহলে আপনি 16213 এই হেল্প নাম্বারে ফোন করতে পারেন।

আইপিএস কেনার সময় যা বিবেচনা করতে হবে

মোট কথা হচ্ছে আইপিএস ক্রয় করার সময় সত্য কথা হওয়া উচিত। অনেক ক্ষেত্রে কিছু কিছু কোম্পানির আই পি এস রয়েছে যার দুই থেকে তিন মাস পরে ব্যাটারি ডাউন হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। এবং অনেকের এরকম রিপোর্ট লক্ষ্য করা যায়। তাই আইপিএস ক্রয় করার সময় অবশ্যই ভালো মানের ব্যাটারি দেখে শুনে ক্রয় করবেন।

অতএব আইপিএস ক্রয় করার সময় আরো কয়েকটি বিষয়ে আপনাকে লক্ষ্য রাখতে হবে। যেমন আইপিএস ক্যাপাসিটি। আপনার বাসা বাড়িতে কতটুকু বিদ্যুৎ প্রতিনিয়ত ব্যবহার হয়। এবং কত ওয়াট সেটা নির্ণয় করুন। তারপর ব্যাটারি ব্যাকআপ ভালোভাবে দেখে ক্রয় করুন। Surge Protection,Automatic Voltage Regulation (AVR),Alarm and Indicators,Brand and Warranty ইত্যাদি দেখে আই পি এস ক্রয় করতে হয়। 

রহিম আফরোজ আইপিএস কেন কিনবেন

বাংলাদেশের বিভিন্ন কোম্পানির মধ্য থেকে রহিম আফরোজ আইপিএস কেন কিনবেন এটি একটি গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন। কারণ বাংলাদেশের বিভিন্ন কোম্পানির আইপিএস এর মধ্য থেকে রহিম আফরোজ আইপিএস কোম্পানি অনেক বেশি ভালো এবং দীর্ঘমেয়াদি। এ ছাড়াও কয়েক বছর পর্যন্ত এই আইপিএস এর ওয়ারেন্টি দেওয়া হয়ে থাকে।

শেষ কথা

একমাত্র বিদ্যুতের বিকল্প হিসেবে আইপিএস ব্যবহার করা হয়। তবে বাংলাদেশে অবস্থিত অনেক আইপিএস কোম্পানির মধ্যে রহিম আইপিএস অনেক বেশি ভালো। তাই অনেক ক্রেতা রয়েছেন,যারা রহিম আফরোজ আইপিএস ক্রয় করতে চান। আশা করতেছি ইতিমধ্যে এই পোস্ট থেকে ররহিম আফরোজ আইপিএস এর দাম সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পেরেছেন। যদি এ পোস্ট থেকে উপকৃত হয়ে থাকেন তাহলে অবশ্যই অন্যদের মাঝে শেয়ার করে জানিয়ে দিবেন। ধন্যবাদ