অনলাইনে বাসের টিকেট কাটার নিয়ম

যদি অনেক ব্যস্ততার কারণে কাউন্টারে গিয়ে টিকিট না কাটতে পারেন তাহলে অনলাইনে এসে টিকেট কেটে নিন। বাংলাদেশের যেকোনো বাসের টিকেট আপনি অনলাইন থেকে ক্রয় করতে পারবেন। এজন্য শুধুমাত্র আপনাকে তাদের নিজস্ব অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে প্রবেশ করতে হবে। অর্থাৎ অনলাইনে বাসের টিকিট কাটার ওয়েবসাইট গুলোতে প্রবেশ করে টিকিট কাটতে হবে।

তবে কিভাবে টিকিট কাটবেন তা হয়তো অনেকেই জানেন না। তাই আমাদের এই আর্টিকেলে বাংলাদেশে অনেকগুলো জনপ্রিয় বাসের টিকিট কাটার ওয়েবসাইটগুলোর লিংক এবং নিয়ম গুলো উল্লেখ করেছি। তাই আপনি বাংলাদেশের যেখানে অবস্থান করেন না কেন, আজকে আমাদের এই পোস্ট সম্পূর্ণ দেখলে আপনি নিজে নিজে ঘরে বসে অনলাইনে বাসের টিকেট কাটার নিয়ম জানতে পারবেন। তাই সম্পূর্ণ পোস্ট করুন।

অনলাইনে বাসের টিকেট কাটার নিয়ম

বর্তমানে অনলাইনে বাসের টিকিট কাটতে হলে বাসের কাউন্টার অথবা অনলাইনে টিকিট ক্রয় করতে হয়। আপনার স্মার্টফোন অথবা ল্যাপটপ দিয়ে আপনি যে ক্যাটাগরির বাসের টিকিট কাটতে চাচ্ছেন। সেই ক্যাটাগরির বাসের ওয়েবসাইটে অথবা অ্যাপ এ প্রবেশ করে টিকিট ক্রয় করা। তবে এই অ্যাপগুলো বা ওয়েবসাইট গুলো রেজিস্ট্রেশন বা লগইন করতে হয়।

অর্থাৎ বর্তমানে প্রায় সকলকে বাসের টিকিট ক্রয় করতে কাউন্টারে প্রবেশ করতে হবে,না হলে অনলাইনে এসে সিট বুকিং করতে হবে। বাংলাদেশের বহু ভ্রমন প্রিয় মানুষ রয়েছেন যারা অন্যান্য যানবাহনের বাসে করে ভ্রমন করতে সবথেকে বেশি পছন্দ করে থাকে। তবে আপনি বাংলাদেশের বাস ব্যবহার করে যে কোনো জায়গায় খুব সহজে যেতে পারবেন।

অনলাইনে বাসের টিকিট বুকিং

যদি বাসের টিকেট বুকিং করতে চান তাহলে আপনি কাউন্টারে গিয়ে টিকিট বুকিং করতে পারেন। অথবা আপনার অনলাইনে গিয়েও বুকিং করে রাখতে পারেন। তবে টিকিট সংগ্রহ করতে অবশ্যই অনলাইনে টিকিট বুকিং করার পর কাউন্টার প্রবেশ করতে হবে। অতএব কাউন্টারে প্রবেশ করে আপনার সঙ্গে জাতীয় পরিচয় পত্র নিয়ে গেলে এবং তাদেরকে জাতীয় পরিচয় পত্র দেখালে আপনাকে বাসের টিকিট প্রিন্ট করে দিয়ে দিবে।

সময়ের অনেক মূল্য তাই আপনার সময় কে বাচিয়ে নিন। এক্ষেত্রে আপনি বাংলাদেশের বিভিন্ন ট্রাভেল ওয়েবসাইটে  প্রবেশ করে বিভিন্ন পরিবহনের বাস এর টিকেট ক্রয় করতে পারেন। এর প্রবেশ করে বিভিন্ন পরিবহনের বাস এর টিকেট ক্রয় করতে পারেন। এর মধ্যে সবথেকে সহজে টিকেট ক্রয় করতে পারেন এই https://www.shohoz.com/bus-tickets লিংকে প্রবেশ করে।

এছাড়াও এই https://bdtickets.com/ লিংকে প্রবেশ করলে আপনি অনলাইনে বাসের জন্য টিকিট বুকিং করতে পারেন। নতুবা এই https://busbd.com.bd/  লিংকেও প্রবেশ করে একটি বাসের টিকিট বুকিং করে নিতে পারেন। তবে সম্পূর্ণ নির্ভর করছে আপনি কোন পরিবহন ব্যবহার করে আপনার গন্তব্যস্থানে পৌঁছাতে চান। ভ্রমন প্রিয় মানুষদের অবশ্যই পছন্দের বাসের তালিকা থাকে। তাই আপনার বাস নির্বাচন করে টিকিট বুকিং করে দিন।

অনলাইনে বাসের টিকিট কাটার জন্য অ্যাপস

যদি অনলাইনের মাধ্যমে বাসের জন্য একটি টিকিট কাটতে চান তাহলে আপনি বিভিন্ন পরিবহনের অনলাইন অ্যাপস দেখতে পারবেন। যেগুলো আপনার মোবাইলে ইন্সটল করে তারপর সেই অ্যাপের প্রবেশ করে আপনার নির্ধারিত পরিবহনের টিকিট ক্রয় করে নিতে হবে। এক্ষেত্রে আপনার কাছে যদি একটি স্মার্ট ফোন থাকে, তাহলে প্লে স্টোরে প্রবেশ করুন।

প্লে স্টোরে প্রবেশ করার পর Shohoz-Buy Bus Ticket লিখে সার্চ করলেই একটি অ্যাপ দেখতে পারবেন সর্বপ্রথম। সেই অ্যাপটি ইন্সটল করুন, অতএব ইন্সটল করার পর খুব সহজে সেখান থেকে অনলাইনে বাসের টিকেট ক্রয় করে নিন। এক্ষেত্রে সেখানে বিভিন্ন কোম্পানির এবং বিভিন্ন ধরনের বাসের টিকিট ক্রয় করতে পারবেন।

হানিফ পরিবহন অনলাইন টিকিট কাটার নিয়ম

হানিফ পরিবহনের অনলাইন টিকেট ক্রয় করতে হলে আপনাকে সহজ ডট কম ওয়েবসাইটে প্রবেশ করতে হবে। আর যদি ওয়েবসাইট থেকে পরিবহনের টিকিট না কাটতে চান। সে ক্ষেত্রে Shohoz-Buy Bus Ticket প্লে স্টোর থেকে অ্যাপটি ইন্সটল করুন। তারপর উপরে দেওয়া উল্লেখিত নিয়ম অনুযায়ী  আপনার হানিফ পরিবহনের টিকিট ক্রয় করে নিয়ে অথবা বুকিং দিয়ে রাখু*ন।

শ্যামলী পরিবহন অনলাইন টিকিট কাটার নিয়ম

শ্যামলী পরিবহন বা শ্যামলী এন আর ট্রাভেলস হচ্ছে বাংলাদেশের একটি অন্যতম আন্তঃজেলা পরিবহন সংস্থা। বাংলাদেশ ছাড়াও ভারতের কলকাতা এবং ভারতের বিভিন্ন শহরে শ্যামলী পরিবহন যাত্রী নিয়ে চলাচল করে থাকে। এক্ষেত্রেও শ্যামলী পরিবহনের অনলাইন টিকিট কাটতে হলে আপনাকে Shohoz-Buy Bus Ticket প্লে স্টোর থেকে অ্যাপটি ইন্সটল আপনি করতে হবে।

না হলে আপনাকে অনলাইন ওয়েবসাইটে প্রবেশ করতে হবে। প্রবেশ করার পর আপনার গন্তব্য স্থান নির্বাচন করুন এবং তারিখ নির্বাচন করুন। তারপর সার্চ বাটনে ক্লিক করুন, অতএব বিভিন্ন শ্যামলী পরিবহনের তালিকা দেখতে। আপনার পছন্দমত একটি বাস নির্বাচন করে সিট পছন্দ করুন তারপর বুকিং করে দিন।

সাকুরা পরিবহন অনলাইনে টিকিট কাটার নিয়ম

পরিবহন ব্যবহার করে দুর্দান্ত এক্সপেরিয়েন্স অর্জন করতে পারবেন। অনেক ভালো মনের বাস দ্বারা যাত্রীদেরকে সেবা প্রদান করা হয়ে থাকে। সাকুরা করা পরিবহনের টিকিট ক্রয় করার ক্ষেত্রে অন্যান্য টিকেটের ক্রয় করার প্রক্রিয়া একই। তা যারা সাকুরা পরিবহন ব্যবহার করে অন্যত্র যেতে যাচ্ছেন। সে ক্ষেত্রে Shohoz-Buy Bus Ticket ওয়েবসাইট অথবা প্লে স্টোর থেকে অ্যাপ ইন্সটল করে টিকিট কাটুন।

গ্রীন লাইন পরিবহনের অনলাইন টিকেট কেনার নিয়ম

১৯৯০ সালে আলহাজ মোহাম্মদ আলাউদ্দিন গ্রীন লাইন পরিবহন সংস্থা প্রতিষ্ঠা করেন। গ্রীন লাইন পরিবহন বাংলাদেশের একটি অন্যতম আন্তঃজেলা পরিবহন সংস্থা। বাংলাদেশের বিভিন্ন জেলায় এবং বিভিন্ন বিভাগে এই পরিবহন দ্বারা যাত্রীদেরকে সেবা প্রদান করা হয়ে থাকে। এমনকি ভারতীয় বিভিন্ন জাতের নিয়ে গ্রীন লাইন পরিবহন পৌঁছে থাকে।

এক্ষেত্রে যদি গ্রীন লাইন পরিবহনের অনলাইন টিকেট ক্রয় করতে চান আপনাকে আপনাকে এই লিংকে  https://greenlinebd.com/ প্রবেশ করতে হবে। প্রবেশ করার পর আপনার  কয়েকটি তথ্য দিতে হবে। এবং আপনার যাত্রার স্থান নির্বাচন করতে হবে। তারপর সার্চ করলে আপনি গ্রীন লাইন পরিবহনের অনেকগুলো যাত্রার টিকিট দেখতে পাবেন। অতএব সেই অনুযায়ী টিকিট ক্রয় করুন।

সোহাগ পরিবহন অনলাইন টিকিট

সোহাগ পরিবহনের অনলাইন টিকেট ক্রয় করতে হলে সর্বপ্রথম এ www.busbd.com লিংকে প্রবেশ করুন। তারপর BUS TICKET BOOKING SERVICE নামক পেইজটিতে প্রবেশ করতে হবে। অতএব পরবর্তীতে পেইজটিতে প্রবেশের পর আপনি “Leaving From” অপশনে যাত্রা শুরুর স্থান এবং “Going To” অপশনে বাসে যেখানে যেতে ইচ্ছুক সে স্থানের নাম select করুন।

এরপর সার্চ বাটনে ক্লিক করলে আপনি বিভিন্ন ধরনের বাস দেখতে পারবেন। অতএব আপনার ইচ্ছেমতো যেকোনো একটি বাস নির্বাচন করে সিট নির্বাচন করুন এবং বুকিং করে দিন। আশা করা যায় সোহাগ পরিবহনের অনলাইন টিকেট এখান থেকে ক্রয় করতে পারবেন।

সেন্ট মার্টিন পরিবহন অনলাইন টিকিট কাটার নিয়ম

বাংলাদেশের বিভিন্ন স্থান থেকে বিভিন্ন স্থানে সেন্ট মার্টিন পরিবহন চলাচল করে থাকে। তবে আপনি যদি সেন্ট মার্টিন পরিবহন এর টিকিট ক্রয় করতে চান তাহলে অবশ্যই এই https://www.saintmartinplus.com/ লিঙ্কে প্রবেশ করতে হবে। অতএব এই লিংকে প্রবেশ করার পর আপনার বর্তমান স্থান এবং যেখানে যেতে চাচ্ছেন সেই স্থান নির্বাচন করুন। তারপর সার্চ এ ক্লিক করে  সেখানে এভেইলেবল বাস নির্বাচন করে টিকিট বুকিং করে দিন।

অনলাইন বাসের টিকিট কাটার জন্য চার্জ কত

যদি shohoz.com থেকে বাসের টিকিট কেটে থাকেন, তাহলে বিভিন্ন পরিবহনের বিভিন্ন যাত্রার টিকিট কেটে নিতে পারবেন। তবে এক্ষেত্রে এত সুবিধার মধ্য থেকে অনলাইন থেকে আপনাকে শুধুমাত্র ২০ টাকা পর্যন্ত চার্জ কেটে নেওয়া হয়। আশা করা যায় ২০ টাকা চার্জ এর বিনিময়ে আপনি আপনার সময় বাঁচিয়ে নিতে পারবেন।

সহজ.কম বাসের টিকিট

আপনাদের বোঝার সুবিধার্থে সহজ ডট কম বাসের https://www.shohoz.com/bus-tickets ওয়েবসাইট লিংক দেওয়া হল। এবং কিভাবে টিকিট কেটে নিবেন তার সংক্ষিপ্ত ব্যাখ্যা এখানে উল্লেখ করা হলো।  সংক্ষিপ্ত ব্যাখ্যা দেখে নিলে আপনি নিজে নিজেই এই ওয়েবসাইট থেকে যেকোনো বাসের টিকেট ক্রয় করে নিতে পারেন।

তবে এই ওয়েবসাইট থেকে টিকিট ক্রয় করতে গেলে সবার আগে আপনার যাত্রা স্থান এবং আপনার স্থান নির্বাচন করে বিভিন্ন পরিবহন অনুসন্ধান করে নিতে হবে। তারপর আপনার পছন্দ অনুযায়ী আপনার বাস নির্বাচন করে টিকেট বুকিং করে দিতে পারেন। সর্বপ্রথম এই ওয়েব সাইটে প্রবেশ  প্রকরার পর From নির্বাচন করতে হবে।

অর্থাৎ আপনি কোথা থেকে বাসে উঠতে চাচ্ছেন সেটা নির্বাচন করতে হবে। তারপর To নির্বাচন করুন। এর মানে হচ্ছে আপনি কোথায় যেতে চাচ্ছেন সেই জায়গাটি নির্বাচন করুন সেখানে সার্চ করে। তারপর একটি অপশন দেখতে পারবেন Date of Journey. এর মানে হচ্ছে আপনি কবে যেতে চাচ্ছেন আপনার গন্তব্য স্থানে সে তারিখ নির্বাচন করুন।

এছাড়াও এই বাসে করে যদি আপনি পুনরায় আপনার নিজ গন্তব্যস্থানে ফেরত আসতে চান সেক্ষেত্রে Date of Return এটি নির্বাচন করুন। সর্বশেষ সার্চ বাটনে ক্লিক করুন। আশা করা যায় আপনার ডিসপ্লে তে অনেকগুলো বাসের অপশন দেখতে পারবেন। তাই আপনার নিজ পছন্দ অনুযায়ী পরিবহন সিলেক্ট করে টিকেট বুকিং করে দিন।

ওয়েবসাইট ব্যবহার করে বাসের টিকিট কাটার নিয়ম

বাংলাদেশের বিভিন্ন অনলাইন ওয়েবসাইট রয়েছে, যে ওয়েবসাইট গুলো ব্যবহার করে আপনি বিভিন্ন পরিবহনের বাসের টিকেট কেটে নিতে পারেন। তবে বাংলাদেশের বেশিরভাগ মানুষ shohoz.com ব্যবহার করে টিকেট কেটে থাকেন। এই ওয়েবসাইটের মাধ্যমে আপনি, হানিফ পরিবহন, সাকুরা পরিবহন, সোহাগ পরিবহন আরো ইত্যাদির জনপ্রিয় পরিবহনের টিকেট খুব সহজেই ওয়েবসাইট ব্যবহার করে কিনতে পাবেন।

এক্ষেত্রে আপনাকে ওয়েব সাইটে প্রবেশ করে, আপনার যাত্রার স্থান এবং আপনার বর্তমান স্থান নির্বাচন করে তারপর আপনার গন্তব্যের তারিখ নির্বাচন করুন। তারপর সার্চ বাটনে ক্লিক করলেই আপনি সেখান থেকে আপনার বাসের বিভিন্ন তথ্য দেখতে পারবেন। অতঃপর আপনার সিট নির্বাচন করে আপনার বাসের টিকিট বুকিং করে নিন।

কল সেন্টারে কল দিয়ে বাসের টিকিট কাটার নিয়ম

আপনি যদি এই 16374 কল সেন্টারের কল করে নেন তাহলে খুব সহজে বাসের টিকেট নিয়ে যে কোন তথ্য এবং যে কোন সমস্যা তাদেরকে জানাতে পারবেন। তবে ০৯৬১৩১০১০১০ নাম্বারে কল করে আপনি বাংলাদেশের বিভিন্ন জায়গায় যাওয়ার জন্য বাসের টিকিট বুকিং করে নিতে পারবেন।

অর্থাৎ এই সকল নাম্বারগুলো দ্বারা আপনি টিকিট বুকিং করতে পারবেন, এবং টিকিট বুকিং করার পর আপনার টিকিট নিয়ে কোন সমস্যা থাকলে সেই সমস্যা তাদেরকে জানাতে পারবেন। যদি এসব নাম্বারে যোগাযোগ করে টিকিট ক্রয় করে নেন তাহলে ব্যাংকিং সিস্টেম পদ্ধতি ব্যবহার করে আপনাকে পেমেন্ট করতে হবে।

অনলাইনে বাসের টিকিট কাটার সুবিধা

বিভিন্ন ভাবে অনলাইনে বাসের মাধ্যমে টিকিট কাটার কারণে আপনি আপনার সময় অনেকটা অপচয় রোধ করতে পারছেন। এমনকি পূর্বের মতো আপনাকে বাসের কাউন্টারে যেয়ে দীর্ঘক্ষন দাড়িয়ে থাকতে হবে না। এছাড়া বিভিন্ন রকম ভোগান্তি থেকে মুক্তি পাওয়া যায় এই অনলাইন থেকে টিকিট কাটার মাধ্যমে।

এছাড়া সব থেকে বড় সুবিধা হচ্ছে লাইনে দাঁড়িয়ে না থেকে টিকিট অল্প সময়ের মধ্যে কেটে নেওয়া। এমনকি বাসের অনেকগুলো সিটের মধ্য থেকে আপনার যে কোন পছন্দ অনুযায়ী সিট সিলেক্ট করে বুকিং দিতে পারেন। এছাড়া আরো ইত্যাদি সুবিধা রয়েছে এই অনলাইনে মাধ্যমে টিকেট কাটার কারণে।

অনলাইনে বাসের টিকিট কাটার অসুবিধা

এই অনলাইনে মাধ্যমে টিকেট কাটার কয়েকটি অসুবিধা রয়েছে। তবে অসুবিধার থেকে থেকে সুবিধা সব থেকে বেশি। আপনি চাইলে অনলাইনে টিকিট কেটে আবার পরবর্তীতে টিকেট ক্যানসেল করে দিতে পারেন। কিন্তু এর মধ্যে একটি অসুবিধা হচ্ছে, আপনি যদি সময় মত আপনার টিকেট কাটার সময় অনুযায়ী পৌঁছাতে না পারেন তাহলে টিকিটের কাটাকাটি মাহির যেতে যেতে পারে।

শেষ কথা 

আশা করতেছি অনলাইন ভিত্তিক বাসের টিকেট কাটার নিয়ম সম্পর্কে জানতে পেরেছেন। যারা এছাড়াও যারা অনলাইনে বাসের টিকেট কাটার নিয়ম এ সম্পর্কে জানতেন না আশা করতেছি তারা এখান থেকে জানতে পেরেছেন। আপনার কাছে যদি এই পোস্ট উপকৃত মনে হয়ে থাকে তাহলে অবশ্যই আপনার আশেপাশের ব্যক্তিদেরকে পোস্ট শেয়ার করে জানিয়ে দিবেন। ধন্যবাদ