মুখের কালো দাগ দূর করার ঘরোয়া উপায়

আপনার মুখ যতই সৌন্দর্য থাকুক না কেন বা উজ্জ্বল থাকুক না কেন, যদি চোখের নিচে কারো দাগ বা কালো ছাপ থেকে যায় তাহলে সেই সৌন্দর্য এক নিমিষেই নষ্ট হয়ে যায়। অর্থাৎ দেখতে অনেকটা অসুন্দর লাগবে। আর বাংলাদেশ সহ পুরো বিশ্বের প্রায় মানুষের মাঝে এই মুখের কালো দাগ লক্ষ করা যায়। যদি আপনার মুখে যদি এরকম কোন কালো দাগ বা ডার্ক স্পট থেকে থাকে তাহলে অতি দ্রুত তা সারিয়ে নিন। মুখের কালো দাগ দূর করার ঘরোয়া উপায় আপনার জন্য এখানে উল্লেখ করেছি। অনেকে রয়েছেন যারা এই মুখের কালো দাগ দূর করার জন্য বিভিন্ন ঔষধ বা প্রসাধনী ব্যবহার করে থাকেন।

তবে প্রসাধনী ব্যবহার করা মোটেও ঠিক নয়,কেননা প্রসাধনী ব্যবহারের ফলে মুখে অনেক সময় এর পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া বিরূপ প্রভাব ফেলে। অর্থাৎ আপনার মুখে মারাত্মক ক্ষতির হতে পারে। তাই সর্বদা চেষ্টা করুন ঘরোয়া উপায় গুলো অবলম্বন করে এরকম সমস্যা সমাধান করার। তাই আপনার মুখের কোন জায়গায় যদি কালো দাগ থেকে থাকে। তাহলে মুখের কালো দাগ দূর করার ঘরোয়া উপায় আমাদের এই পোস্ট থেকে বিস্তারিত জেনে নিন।

মুখের কালো দাগ দূর করার ঘরোয়া উপায়

মুখের কালো দাগ নিয়ে চিন্তার কিছু নেই। সঠিক চিকিৎসা নিলেই আপনার এই কালো দাগ সময়ে দূর করার সম্ভব হবে। তবে এর জন্য ভুল ওষুধ গ্রহণ না করে ঘরোয়া উপায় গুলো অবলম্বন করা উচিত। যদি ঘরোয়া উপায় অবলম্বন করে আপনার মুখের কালো দাগ দূর না হয়।

পরবর্তীতে একজন রেজিস্ট্রার চিকিৎসকের সাথে যোগাযোগ করে মুখের কালো দাগ দূর করার জন্য বিভিন্ন ঔষধ গ্রহণ করতে পারেন।  তবে এর পূর্বে অবশ্যই ঘরোয়া উপায় গুলো অবলম্বন করা উচিত। তারপর এই পোস্ট থেকে জেনে নিন মুখের কালো দাগ দূর করার ঘরোয়া উপায় সম্পর্কে।

পুরুষের মুখের কালো দাগ দূর করার ঘরোয়া উপায়

বিভিন্ন কারণে মানুষের মুখে দাগ করে যায়। আবার লক্ষ্য করা যায় অনেকের চোখের নিচে কালো চেয়ে দাগ বা কালো ছাপ রয়েছে। তবে অনেক ক্ষেত্রে এই কালো ছাপ অতিরিক্ত রাত জাগার কারণে হয়ে থাকে। এবং বিভিন্ন হরমোনের অভাবে মুখের মধ্যে এই বিক্রিয়া লক্ষণীয় হয়। এমনকি পুষ্টিহীনতার অভাবেও এই সমস্যা হতে পারে।

যেহেতু আপনার চোখের নিচে অথবা মুখে ব্রণ আকারে বা বিভিন্ন ধরনের কালো দাগ পড়ে গিয়েছে। তো সেহেতু দূর করা  দূর করা উচিত। কারণ এইসব দাগ মুখে থাকলে দেখতে একদম অসুন্দর দেখায়।  তাই আপনার মুখ আরো সুন্দর এবং উজ্জ্বল করতে ঘরোয়া উপায় অবলম্বন করুন। একজন পুরুষ তার মুখে কারো দাগ দূর করতে যে ঘরোয়া উপায় গুলো অবলম্বন করতে পারেন সে উপায় গুলো হচ্ছে।

  • যে কোন পুরুষ এ কাজটি করতে পারেন তার মুখের কালো দাগ দূর করতে।  যেমন একটি লেবু কেটে তার রস বের করে আপনার কালো দাগের স্থানে লাগিয়ে রাখু*ন ১৫ মিনিট পর্যন্ত। এরপর হালকা গরম পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন।
  • এছাড়াও ২ চামচ বেসন, ২ টেবিল চামচ টকদই, এবং ১ চা চামচ মধু ও ১ চিমটি হলুদের গুঁড়া মিশিয়ে ফেসপ্যাক তৈরি করে ত্বকে লাগিয়ে ২০ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলুন। এটি আপনার মুখের  কারো দাগ দূর করতে অনেকটা সহায়তা করতে পারে।
  • রাত জাগা বন্ধ করুন।  প্রতিদিন নিয়ম করে রাত ১০ টার পূর্বে ঘুমিয়ে যান। এবং খুব ভোরে ঘুম থেকে উঠবেন এবং নামাজ পড়বেন। প্রতিদিন এই নিয়ম মেনে চলুন দেখবেন অল্প দিনের মধ্যে আপনার মুখের কালো দাগ দূর হয়ে গেছে।
  • বেশি বেশি পানি পান করুন। এই পানি অনেক উপকারী। যা আপনার  মুখের কালো দাগ দূর করতে সহায়তা করবে।
  • সাবধানতার সাথে মুখের জন্য কোন রকম প্রসাধনী ব্যবহার করবে না। কোন হস্তমৈথুন ছেড়ে দিন। মাঝে মাঝে গরম পানি দিয়ে মুক্ত করুন।

মেয়েদের মুখের কালো দাগ দূর করার ঘরোয়া উপায়

মেয়েরা স্বভাবতই রূপবতী। তবে সুন্দর রূপকে অসুন্দর করতে একটি মুখের কালো দাগই যথেষ্ট। অনেক সুন্দর এই রূপবতী মেয়ে রয়েছেন যাদের মুখের কালো দাগ নিয়ে অনেক অস্বস্তি বোধ করছেন। বিভিন্ন  উপায় অবলম্বন করেও এই মুখের কালো দাগ দূর করতে পারছেন না।

তারা যদি সঠিকভাবে মুখের কালো দাগ দূর করতে ঘরোয়া উপায় অবলম্বন করেন। আশা করা যায় খুব দ্রুত তাদের এই মুখের দাগ দূর হয়ে যাবে। তাই এখানে মেয়েদের মুখের কালো দাগ দূর করার কয়েকটি ঘরোয়া উপায় সংক্ষিপ্ত ব্যাখ্যা দিয়েছি। অতএব গুরুত্ব সহকারে দেখু*ন উপকারে আসতে পারে।

  • লেবুর রস মুখে ব্যবহার করতে পারেন।
  • অ্যালোভেরা জেল ব্যবহার করতে পারেন।
  • কালো চন্দন ব্যবহার করতে পারেন।
  • কমলা লেবুর খোসা অনেক উপকারী এটা ব্যবহার করতে পারেন।
  • পুদিনা পাতার পেস্ট ব্যবহার করতে পারেন।
  • শসা এবং আলুর মাস্ক ব্যবহার করতে পারেন।

মুখের কালো ছোপ দূর করার ঘরোয়া উপায়

আমাদের আশেপাশেই হাজারো গুণের ঔষুধি গাছ রয়েছে। এবং বিভিন্ন ফল মূল রয়েছে। যা আমরা এ সম্পর্কে জানিনা। আপনারা নিশ্চয়ই হয়তো কমলা লেবুর খোসা,শসা এবং টমেটো সম্পর্কে পরিচিত। কিন্তু অনেকেই এসব উপাদান কিভাবে এবং কোথায় ব্যবহার করতে হয় তা জানেন না। কিন্তু এই উপাদানগুলো আপনার মুখের কালো চোখ দূর করতে ব্যবহার করতে পারবেন। অতএব নিজের বিস্তারিত ব্যাখ্যা দেওয়া হল।

চন্দন:

এই চন্দনে রয়েছে অনেক গুণ। বলতে গেলে জাদুকরী গুন। একবার ব্যবহার করে দেখু*ন আপনাকে কালো দাগ দূর করার লক্ষ্যে। আপনার আশানুরূপ ফল পেয়ে যাবেন। এই চন্দনে অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটরি বৈশিষ্ট্য রয়েছে যা যেকোনো কালো দাগ এবং ব্রণ কমাতে করতে সহায়তা করে।

কয়েক ফোটা নারকেল তেলের সাথে এক চামচ চন্দন গুঁড়ো,সাথে কমলাপুর লেবুর রস যোগ করে পেস্ট তৈরি করুন। এবং এই পোষ্ট আপনার মুখে ১৫ মিনিট পর্যন্ত রেখে দিন। অতঃপর হালকা গরম পানি দিয়ে আপনার মুখ ধৌত করুন।

কমলালেবুর খোসা:

এটি ভিটামিন সি এর মধ্যে একটি ফল। এবং এই ফলের খোসায় রয়েছে ভিটামিন সি। এবং কমলালেবুর খোসায় থাকে সাইট্রিক অ্যাসিড। আর এই ভিটামিন সি কালো দাগ দূর করতে সাহায্য করে। যেটা এই কমলা লেবুর থোসায় হয় বিদ্যমান রয়েছে। অতঃপর এই কমলালেবুর খোসা ভালোভাবে শুকিয়ে ব্লেন্ডার করে গুড়ো তৈরি করুন।

এবং এরপর এটি পেস্ট বানিয়ে আপনার মুখে ব্যবহার করুন। তা পেস্ট বানানোর সময় লেবুর রস দিতে পারেন সাথে এবং অল্প দুধ ব্যবহার করতে পারেন। এবং এই পেস্ট ২০ মিনিট পর্যন্ত আপনার মুখে লাগিয়ে রাখবেন।

আমন্ডের তেল:

প্রতিরাতে কয়েকদিন পর্যন্ত ঘুমানোর আগে কয়েক ফোঁটা এই সুইট আমন্ড অয়েল বা তেল ব্যবহার করুন। দেখবেন অনেক ভালো ফল খাচ্ছেন আপনার এই কালো দাগ দূর করতে।

টমেটো:

ত্বক ফর্সা করতে এই টমেটো অনেক কার্যকরী। এছাড়াও এই মুখের কালো দাগ দূর করে ত্বকে ফর্সা করতে সাহায্য করে এই টমেটো। বিশেষ করে চোখের নিচে কালো ছাপ পড়া ইত্যাদি খুব সহজে দূর করে। অতঃপর আপনার মুখের যেসব জায়গায় কালো ছাপ বা দাগ রয়েছে সেখানে আধাঘন্টা যাব টমেটো ব্যবহার করুন বা লাগিয়ে রাখু*ন রাখু*ন।

লেবু দিয়ে মুখে কালো দাগ দূর করার ঘরোয়া উপায়

লেবুতে রয়েছে সাইট্রিক এসিড। যা ভিটামিন সি সমৃদ্ধ একটি ফল। এই লেবু সম্পর্কে আমরা সকলে  জানি। আর এই ভিটামিন সি শরীরের কালো দাগ প্রতিরোধ করতে সহায়তা করে এবং দূর করতে সহায়তা করে। যেহেতু লেবুতে রয়েছে এ ভিটামিন সি তাই আপনি মুখে ব্যবহার করতে পারেন আপনার কালো দাগ দূর করার জন্য।

আর পিগমেন্টেশন অনিয়ন্ত্রণ হওয়ার ফলেই কালো দাগ হওয়ার এর সম্ভাবনা থাকে এবং জ্বালাপোড়ার সৃষ্টি হতে পারে। আর একমাত্র এই পিগমেন্টেশন কে নিয়ন্ত্রণ করে এই ভিটামিন সি অর্থাৎ লেবু।  তাই আপনার মুখের কালো দাগ দূর করার জন্য লেবু ব্যবহার করতে পারেন। অতঃপর মুখের কালো দাগ দূর করার ঘরোয়া উপায় গুলো আরো বিস্তারিত জানতে একটু নিচে প্রবেশ করুন।

অ্যালোভেরা দিয়ে মুখের কালো দাগ দূর করার ঘরোয়া উপায়

অ্যালোভেরায় থাকে অ্যালোইন নামক একটি উপাদান। এবং মুখের হাইপারপিগমেন্টেশন দূর করতে এটি অত্যাধিক কার্যকরী। তাই অনেকেই এই অ্যালোভেরা ব্যবহার করেন মুখের কালো দাগ দূর করতে। আপনিও চাইলে ফার্মেসি থেকে ওষুধ গ্রহণ করার পূর্বে এই অ্যালোভেরা আপনার মুখে লাগিয়ে দেখু*ন।

তবে আপনি অনেক ফার্মেসি থেকে অ্যালোভেরা জেল কিনতে পারবেন। অথবা আপনি নিজে নিজে বাড়িতে অ্যালোভেরা দিয়ে একটি জেল বা পেস্ট বানাতে পারবেন। এবং এ জেল আপনি সারারাত মুখে লাগিয়ে রাখতে পারেন। অথবা সকালে ভালোভাবে ধুয়ে ফেলুন। এভাবে কয়েক দিন করুন আশা করা যায় মুখে কালো দাগ দূর হবে।

মুখের কালো দাগ দূর করার সেরা ৫টি ঘরোয়া উপায়

যারা মুখের কালো দাগ নিয়ে অনেকটা চিন্তিত তারা নিজের দেওয়া ৫টি ঘরোয়া উপায় লক্ষ্য করুন। নিচে দেওয়া উল্লেখিত পাঁচটি উপায় ছাড়াও আরো প্রাকৃতিকভাবে বিভিন্ন উপায়ে মুখের কালো দাগ দূর করা সম্ভব হয়। তবে এর মধ্যে উল্লেখিত নিচের দেওয়া ৫ টি ঘরোয়া উপায় অনেকটা সহজ হবে আপনার জন্য। এমনকি এই ঘরোয়া উপায় গুলো কিভাবে ব্যবহার করবেন তার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। তাই ভালোভাবে সেই পাঁচটি  ঘরোয়া উপায় গুলো লক্ষ্য করুন।

আলুর রস:

সর্বপ্রথম আলু কে ভালোভাবে পরিষ্কার করুন। তারপর সে আলু থেকে রস বের করুন। এবং সরাসরি এর রস আপনার মুখে ব্যবহার করতে পারবেন। অর্থাৎ যেখানে আপনার কালো দাগ রয়েছে সেখানে এটি ১০ মিনিট পর্যন্ত লাগিয়ে রাখু*ন বা ব্যবহার করুন। এছাড়াও আলুর রস,মধু,লেবুর রস দিয়ে ফেসপ্যাক বানিয়ে ব্যবহার করতে পারেন।

হলুদ:

যদি আপনার মুখের অথবা শরীর কোন জায়গায় কালো দাগ থাকে। তাহলে হলুদগুলো ব্যবহার করুন। এ সম্পর্কে হয়তো অনেকেই জানেন না। আপনি জেনে রাখু*ন। অতঃপর দ্রুত ফলাফল পেতে হলুদের  গুড়ো দিয়ে একটি প্যাক বানিয়ে নিন। সাথে আপনি কিছু পরিমাণ দুধ এবং অল্প পরিমাণ লেবুর রস অর্থাৎ এক চামচ এক চামচ করে ব্যবহার করতে পারেন।

এরপরে আপনার মুখে ২০ মিনিট পর্যন্ত কালো দাগের স্থানে লাগিয়ে রাখু*ন। এরপর হালকা গরম পানি নিয়ে মুখ ভালোভাবে ধৌত করুন। এবং হালকা করে মুক্তল দিয়ে মুছে নিন। নিয়মিত এই কাজটি দুই সপ্তাহ পর্যন্ত করতে পারেন।

পেঁপে:

এই পেঁপেতে পাপাইন নামক একটি প্রাকৃতিক উৎসেচক থাকে। যা এটি মুখের কালো দাগ দুুর করতে সহায়তা করে। অর্ধেক কাঁচা পেঁপে ভালো করে কুড়িয়ে নিন। তারপর সঙ্গে মিশিয়ে দিন ৪ চামচ কাঁচা দুধ। এরপর ২০ মিনিট মুখে মেখে রেখে তার পর পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এই প্রক্রিয়া সপ্তাহে তিন বার করতে পারেন। আশা করা যায় আপনার অনেক উপকার হবে।

পুদিনাপাতার পেস্ট:

আপনার মুখের যেখানে কালো দাগ রয়েছে সেখানে আপনি পুদিনা পাতার পেস্ট লাগিয়ে রাখতে পারেন যদি আপনার সম্ভব হয়। জানা গিয়েছে এ প্রক্রিয়া অনেকটা কার্যকরী। এবং অনেকটা উপকারী, তাই মুখের কালো দাগ দূর করতে পুদিনা পাতার পেস্ট ব্যবহার করুন। 

গোলাপ জল এবং দুধ:

গোলাপজল এবং দুধ সংগ্রহ করুন। এরপর একসাথে মিশিয়ে আপনার কালো দাগের স্থানে ব্যবহার করুন। কয়েকদিন পর্যন্ত ব্যবহার করুন এরপর লক্ষ্য করুন আপনার সেই কালো দাগের স্থান এর দিকে।

ঘরোয়া উপায়ে কালো দাগ দূর করতে কয়েকটি টিপস

যারা ঘরোয়া উপায়ে কারো দূর করতে চাচ্ছেন তাদের জন্য কয়েকটি টিপস এখানে উল্লেখ করেছি। যদি কেউ নিম্নের টিপস গুলো প্রতিনিয়ত অবলম্বন করে তাহলে তার কালো দাগ ঘরোয়া উপায়ে দূর হবে। এতে কোনরকম ডাক্তারের সাথে আপনার যোগাযোগ করতে হবে না  এবং ডাক্তারের পরামর্শ এবং শরণাপন্ন হতে হবে না। অতঃপর কোন রকম পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া ছাড়া আপনাকে দ্রুত দূর হবে। সে টিপসগুলো নিম্ন উল্লেখ করা হলো।

  • ঘুমাতে যাওয়ার আগে মুখে ভালোভাবে লেবুর রস লাগিয়ে ঘুমান। এতে লক্ষ্য করে দেখবেন ত্বক ব্রণ মুক্ত থাকবে।
  • কমলার খোসা বেটে মুখে লাগালে আপনার ব্রণের আরাম হবে, আবার ত্বকও ফ্রেস এবং উজ্জ্বল হবে।
  • দিনে অন্তত কমপক্ষে দুই বার ভাল ফেইসওয়াশ দিয়ে মুখ পরিষ্কার করুন। তাইলে মাঝে মাঝে হালকা গরম পানি দিয়ে মুখ ধৌত করতে পারে। তবে মুখে সাবান ব্যবহার না করলেই ভাল।
  • মুখের কালো দাগ, বয়সের ছাপ, বিসন্নতা, এসব দূর করতে চন্দনের প্যাক খুব কার্যকর। চন্দন গুড়ার সাথে হলুদ আর দুধ মিশিয়ে পেস্ট বানিয়ে মুখে লাগান নিয়মিত। ত্বক উজ্জ্বল আর সতেজ করতে এর জুড়ি নেই।
  • ব্রণ ও ব্রণের দাগ কমাতে পানি ও ভিনেগারের মিশ্রণ গরম করে এই মিশ্রণ দিয়ে মুখে ৫ মিনিট রাখবেন। এরপর ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।
  • যাদের চোখের চারপাশে ডার্ক সার্কেল বা ডার্ক স্পট আছে তারা ঘুমানোর আগে শসা বা আলু ভালো করে কেটে চোখের চারপাশে কিছুক্ষণ রাখু*ন। তারপর আপনি ঠাণ্ডা টি ব্যাগ ১০-১৫ মিনিট চোখের পাতার উপর দিয়ে রাখু*ন। চোখের চারপাশের কালো দাগ কমে যাবে।

শেষ কথা

আশা করতেছি যে এই পোস্ট থেকে আপনারা একটু প্রকৃত হয়েছেন। এবং জানতে পেরেছেন মুখের কালো দাগ দূর করার ঘরোয়া উপায় গুলো সম্পর্কে। এ সমস্যা বিভিন্ন কারণে হয়ে থাকে, তাই ঘাপে যাওয়ার কিছু নেই। সঠিক চিকিৎসা গ্রহণ করুন খুব সহজেই এই কালো দাগ দূর হয়ে যাবে। তবে সর্বপ্রথম ঘরোয়া উপায় গুলো অবলম্বন করুন। এতে আশা করা যায় আপনার সমস্যা অনেক দ্রুত সমাধান হয়ে যাবে। এবং আপনার আশপাশের ব্যক্তিদেরকে এই পোস্ট শেয়ার করে জানিয়ে দিন। ধন্যবাদ